ঢাকাশনিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৭:০৫

বরগুনার ৫ ইউপিতেই নৌকার জয়, আলম-তনুর হ্যাট্রিক

নিজস্ব প্রতিবেদক
জুন ১৫, ২০২২ ১০:৩১ অপরাহ্ণ
পঠিত: 314 বার
Link Copied!

ষষ্ঠ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বরগুনার তালতলী উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নে ভোট সম্পন্ন হয়েছে। এরমধ্যে চেয়ারম্যান পদে সবকটিতেই আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা নির্বাচিত হয়েছেন এবং তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়ে হ্যাট্রিক করেছেন দু’জন।

বুধবার (১৫ জুন) রাতে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা বেসরকারিভাবে ফল ঘোষণা করেন। পরে বিস্তারিত ফলাফল প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশন।

এর আগে, বুধবার সকাল ৮টা থেকে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ শুরু হয়। একটানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে ভোটগ্রহণ।

রিটার্নিং কর্মকর্তাদের জানানো তথ্যানুযায়ী, উপজেলার পচাঁকোড়ালিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবদুল রাজ্জাক হাওলাদার নৌকা প্রতীক নিয়ে ৩ হাজার ৯০৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আবুজাফর খোকন আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩ হাজার ২১৮ ভোট।

ছোটবগী ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তৌফিক উজ্জামান তনু নৌকা প্রতীক নিয়ে ৫ হাজার ৬৯৯ ভোট পেয়ে তৃতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল হোসেন পেয়েছেন ১ হাজার ৮১৫ ভোট।

কড়ইবাড়িয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ইব্রাহিম পনু নৌকা প্রতীক নিয়ে ৩ হাজার ৯ ভোট পেয়ে  নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপিপন্থী স্বতন্ত্র প্রার্থী হাফিজুল হক সিকদার মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে ২ হাজার ৬৪২ ভোট পেয়েছেন।

বড়বগী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলমগীর হোসেন আলম মুন্সী নৌকা প্রতীক নিয়ে ৪ হাজার ৯১৪ ভোট পেয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী শাহাদাত হোসেন হাতপাখা নিয়ে ৩ হাজার ২০ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন।

নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. বাচ্চু মিয়া নৌকা প্রতীক নিয়ে ৫ হাজার ৪০৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহজালাল পিয়াদ চশমা প্রতীক নিয়ে ১ হাজার ৩৭৯ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মস্তফা কামাল জানান, উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নে শেষ ধাপে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। ইভিএমের মাধ্যমে ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, প্রিসাইডিং কর্মকর্তা, গণমাধ্যম কর্মী, প্রার্থী ও ভোটারদের সহযোগিতায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্ভব হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।