ঢাকাশনিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৭:১৮

অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে ধর্ষণ, ৯৯৯-এর ফোনে উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক
জুলাই ৩, ২০২২ ৫:৪৪ অপরাহ্ণ
পঠিত: 118 বার
Link Copied!

বরগুনার তালতলীতে অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ভুক্তভোগী গৃহবধূকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন তপু বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শনিবার (২ জুলাই) রাতে উপজেলার ছোটবগী ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

গৃহবধূর মা জানান, শনিবার রাত ৯টার দিকে প্রতিবেশী আকাব্বর কাজীর ছেলে বারেক কাজী আমাদের ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক আমার মেয়েকে ধর্ষণ ও মারধর করে। পরে আমি টের পেয়ে বাহির থেকে দরজা তলা বন্ধ করে ডাক চিৎকার দিলে স্থানীয় ইউপি সদস্য জাহিদ মোল্লা তালা ভেঙে মেয়েকে মারধর করে অভিযুক্তকে ঘর থেকে বের করে নিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা ৯৯৯-এ ফোন দিলে পুলিশ এসে আমার মেয়েকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করে।

গৃহবধূর মা আরও বলেন, আমার মেয়ে পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা থাকায় স্বামীর বাড়ি থেকে আমাদের বাড়িতে বেড়াতে আসে। বিয়ের আগ থেকেই অভিযুক্ত আমার মেয়েকে বিরক্ত করে আসছে। বিয়ের পর যখন মেয়ে বাড়িতে আসে তখনো কুপ্রস্তাব দেয়। আমার মেয়ে বর্তমানে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান, মেডিকেল রিপোর্ট শেষে বিস্তারিত জানানো যাবে।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন তপু জানান, রাতে ৯৯৯-এর ফোন পেয়ে পুলিশ গিয়ে ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বরগুনা হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।