ঢাকামঙ্গলবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৯:১০

নৌকা ডুবাতে স্বামী বিদ্রোহী-স্ত্রী ব্যাকআপ, ফাঁক খুঁজছে বাকিরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
জুন ৯, ২০২২ ২:১০ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 104 বার
Link Copied!

বরগুনার তালতলীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে উপজেলার নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও বর্তমান চেয়ারম্যান দুলাল ফরাজি এবার নির্বাচন করছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে। মনোনয়ন পত্র জমা দিয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন প্রচার প্রচারণা। পাশাপাশি ব্যাকআপ হিসাবে তার স্ত্রী উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মাসুদা আক্তারকেও একই ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করিয়েছেন।

বিষয়টি নিয়ে চলছে ব্যপক আলোচনা সমালোচনা। স্বামী-স্ত্রীর একসঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করার ঘটনাকে আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থীকে চাপে রাখার কৌশল বলে মনে করছেন অনেকে।

স্বামী-স্ত্রীর একসঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থী হবার বিষয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী দুলাল ফরাজি জানান, ‘আমি ১৯ বছর চেয়ারম্যান ছিলাম। সাধারণ ভোটাররা এবারও আমাকে চেয়ারম্যান হিসেবে চায়। তবে নির্বাচনে সহিংস পরিবেশ তৈরি হতে পারে এবং আমি জীবনের ঝুঁকিতে আছি। একারণে স্ত্রীকেও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করিয়েছি।’

অন্যদিকে, আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. বাচ্চু মিয়া জানান, ‘স্বতন্ত্র প্রার্থীরা আমাকে চাপে রাখতে নানা ধরনের ফাঁদ পেতেছে, ফাঁক খুঁজছে। বহিরাগত ক্যাডার বাহিনীর দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আমার কর্মী ও ভোটারদেরকে হুমকি ধমকি দিচ্ছে। আমার নির্বাচনী পোস্টার ছিঁড়ে ফেলছে এবং প্রচারণার কাজে বাধা দিচ্ছে।’

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, তালতলী উপজেলার নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে এবার চেয়ারম্যান পদে মোট ৭জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. বাচ্চু মিয়া, ইসলামি আন্দোলনের মো. আবু জাফর, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ শাহজালাল, মো. নিজাম শেখ, মো. মশিউর রহমান, মো. দুলাল ফরাজি ও তার স্ত্রী মোসা. মাসুদা আক্তার। এছাড়াও এ নির্বাচনে সাধারণ সদস্য পদে ৩৫ জন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদের মোট ১৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

উল্লেখ্য, তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান দুলাল ফরাজি উপজেলার বড়বগী ইউনিয়নে এর আগেও ৯ বছর ও নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নে ১০ বছর চেয়ারম্যান ছিলেন। তবে দলীয় মনোনয়ন না পাবার কারণে এবার তিনি নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র (ঘোড়া প্রতীক) প্রার্থী হয়েছেন। একই সাথে তার স্ত্রী মাসুদা আক্তারকেও একই ইউনিয়নে (মোটরসাইকেল প্রতীক) স্বতন্ত্র প্রার্থী করেছেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।