ঢাকারবিবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৭:২৬

কিশোর গ্যাংয়ের পৃষ্ঠপোষকতার অভিযোগ মেয়রের বিরুদ্ধে

নিজস্ব প্রতিবেদক
মার্চ ২০, ২০২২ ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 92 বার
Link Copied!

বরগুনার আমতলী পৌরসভার মেয়র মতিয়ার রহমানের বিরুদ্ধে স্থানীয় কিশোর গ্যাংয়ের পৃষ্ঠপোষকতার অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী একটি পরিবার।

শনিবার (১৯ মার্চ) সকাল ১০টায় বরগুনা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ উপস্থাপন করেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্য মাজহারুল ইসলাম নবাব তালুকদার।

নবাব উপজেলার দক্ষিণ রাওঘা গ্রামের মৃত নূর ইসলাম তালুকদারের ছেলে। সংবাদ সম্মেলনে তার মা-ভাই ও স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বক্তব্যে নবাব তালুকদার বলেন, আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মো. মতিয়ার রহমানের ছত্রছায়ায় গড়ে ওঠা বেপরোয়া কিশোর গ্যাং আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন ছাত্রলীগ কর্মী হিসেবে পরিচয় দিয়ে নিজের ক্ষমতার অপব্যবহার করে চলছে। তারই পৃষ্ঠপোষকতায় এই কিশোর গ্যাং দিয়ে দলীয় প্রতিপক্ষদের শায়েস্তা ও অপদস্ত করার জন্য তিনি এদের অপব্যবহার করে আসছেন।

নবাব বলেন, গত ১৩ মার্চ প্রকাশ্য দিবালোকে মেয়র অনুসারী আশফাক আহমদ ত্বোহা ও রবিউল নামে দুই কিশোর গ্যাং লিডার আমাকে জোরপূর্বক মোটরসাইকেলে উঠিয়ে গ্যাং চক্রের নিরাপদ জোন বৈঠাকাটায় নিয়ে যায়। সেখানে উপস্থিত আরও অসংখ্য অনুসারীরা মিলিত হয়ে আমাকে বেদম মারধরসহ হত্যার চেষ্টা করে।

তিনি বলেন, রাজনৈতিক জেরে আমতলী উপজেলা পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও আমতলী পৌরসভার কাউন্সিলর জিএম মুসাকে ফোন দিয়ে গালিগালাজ, তার বিরুদ্ধে ফেসবুকে কটুক্তিমূলক মন্তব্য পোস্ট করা ছাড়াও ফেসবুক লাইভে গিয়ে তাকে গালিগালাজ করতে বলে। এগুলো আমার পক্ষে সম্ভব না হওয়ায় আমাকে আরো বেদম মারপিট করে।

নবাব তালুকদার অভিযোগ করেন, কিশোর গ্যাংয়ের হাতে জিম্মি আমতলী পৌরবাসী। এদের হাতে প্রায়ই পৌর শহরের সাধারণ মানুষ ও রাজনৈতিক নেতারা মারধরের শিকার হচ্ছেন। তাদের ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছে না। এদের নিয়ন্ত্রণে চলছে রমরমা মাদকের বাজার, চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, মেয়েদের উত্ত্যক্ত করা, বেপরোয়া মোটরবাইক চালানো, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম রাজনৈতিক ও সম্মানী ব্যক্তিদের সম্মানহানিসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড।

সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে দ্রুত বেপরোয়া কিশোরদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

যোগাযোগ করা হলে আমতলী পৌরসভা মেয়র মো. মতিয়ার রহমান বলেন, রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা ষড়যন্ত্র করছে। আমি কোন কিশোর গ্যাং এর পৃষ্ঠপোষকতা করিনা। আমার বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগ মিথ্যা।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।