ঢাকাশনিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৬:২৫

এক ট্রলারেই ৭৫ মন ইলিশ, বিক্রি ১৮ লাখে

পাথরঘাটা প্রতিনিধি
আগস্ট ৩, ২০২২ ১২:৪৬ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 172 বার
Link Copied!

৬৫ দিনের অবরোধ শেষ। চলছে ইলিশের ভরা মৌসুম। তবুও জেলেদের জালে দেখা মিলছে না কাঙ্খিত ইলিশ।

এমন সময় অন্য সকল জেলেরা খালি হাতে ফিরলেও পাথরঘাটা উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তফা গোলাম কবিরের মালিকানাধীন এফবি সাফওয়ান ট্রলারে জেলের জালে উঠে এসেছে ৭৫ মন রুপালী ইলিশ। যা ১৮ লাখে বিক্রিও হয়েছে।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) এফবি সাফওয়ান ট্রলারের মাঝি মো. মহসিন মিয়ার বরাত দিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেন ট্রলার মালিক মোস্তফা গোলাম কবির।

তিনি জানান, কয়েকদিন আগে বঙ্গোপসাগরের গভীরে মাছ শিকারের উদ্যেশ্যে ট্রলারটি পাঠান তিনি। এর পরেই মাঝি মহসিন মিয়া সাগরের গভীরে জাল ফেলতেই উঠে অসে ঝাঁকে ঝাঁকে রুপালি ইলিশ। সোমবার বিকালে পাথরঘাটা মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের ঘাটে গভীর সমুদ্র থেকে ফিরে আসে ট্রলারটি।

পাথরঘাটা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তফা গোলাম কবির বলেন, বর্তমানে ইলিশের ভরা মওসুমেও যখন জেলেদের জালে কাঙ্খিত ইলিশ মিলছেনা, সে সময় আমার জেলেরা ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ নিয়ে ঘাটে ফিরেছে। সোমবার রাতেই মাছগুলো বিক্রি করার জন্য বাগেরহাট পাঠিয়ে দিয়েছি। সেখানে ১৮ লাখ টাকায় বিক্রি করা হয়েছে।

বরগুনা জেলা মৎস্যজীবি ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বলেন, অনেক জেলেরা জালে মাছ না পাওয়ায় তারা হতাশ হয়ে ঘাটে ফিরে আসেছে। খুব সমস্যার মধ্যে তাদের দিন কাটছে। এরই মধ্যে পাথরঘাটা উপজেলা চেয়ারম্যানের ট্রলারে ৭৫ মন ইলিশ পেয়েছে, এটাতো আমাদের জন্য খুশির খবর।

পাথরঘাটা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা জয়ন্ত কুমার অপু জানান, গভীর সমুদ্রে এখন প্রচুর পরিমাণে ইলিশ ধরা পড়ছে। ওই ইলিশ সাইজেও এখন বড়। তবে উপকূলের কাছাকাছি এখন অনেকটা কম মাছ পাওয়া যাচ্ছে। ধারনা করা হচ্ছে সামনের সময়গুলোতে জেলেদের জালে আরো ইলিশ ধরা পরবে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।