ঢাকাশনিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৫:৪০

ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ, মুখে হাসি

শফিকুল ইসলাম খোকন
জুলাই ২৫, ২০২২ ১:৪৬ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 163 বার
Link Copied!

দীর্ঘদিন ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে সমুদ্রে মাছ শিকারে নেমেছেন উপকূলীয় জেলেরা। শনিবার (২৩ জুলাই) রাত ১২ টার পর ট্রলার নিয়ে মাছ শিকারের নামেন বরগুনার জেলেরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রথম দিনেই জেলেদের জালে প্রচুর মাছ ধরা পড়েছে। জালভর্তি ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ পেয়ে হাসি ফিরেছে জেলেদের মুখে।

এদিকে তড়িঘড়ি করে প্রথম দিনেই বরগুনার পাথরঘাটা উপকূলের জেলেরা নদী ও সাগর মোহনায় মাছ শিকার করেছেন। ধরেছেন বাজারও। দীর্ঘদিন পর জালভর্তি মাছ নিয়ে বিএফডিসি ঘাটে এলে ট্রলার মালিক, আড়তদার ও জেলেদের মাঝে আনন্দ উল্লাস দেখা গেছে।

সাগর থেকে মাছ শিকার করে ফিরে আসা জেলে আব্বাস মিয়া বলেন, একটা খেও দিছি। যা পাইছি তাড়াতাড়ি করে ভালো দামের জন্য তা নিয়াই প্রথম বাজার ধরলাম।

পাথরঘাটা মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে দেখা গেছে, মৎস্য ঘাটে ২০ থেকে ২৫ টি মাছ ধরার ট্রলার নোঙর করে আছে। ওই ট্রলার থেকে ঘাট শ্রমিকরা মাছ উঠাচ্ছেন। অপরদিকে টল সেটে হাঁক ডাকে মাছ বিক্রি হচ্ছে।

জেলা মৎস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী জানান, প্রথম দিনে অন্তত ২৫ টি মাছ ধরা ট্রলার ঘাটে এসেছে। জেলেরা বলছে ভালোই মাছ পাচ্ছে। দামও ভালো মিলছে।

বিএফডিসির মার্কেটিং অফিসার বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, প্রথম দিনে বিএফডিসি মৎস্য বাজারে মোট ১১ হাজার ৮৬৯ কেজি মাছ বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে ইলিশ বিক্রি হয়েছে ৭ হাজার ৭৮০ কেজি। আর অন্যান্য মাছ বিক্রি হয়েছে ৪ হাজার ৮৯ কেজি। মোট মাছ বিক্রি হয়েছে ৬৭ লাখ ৫৬ হাজার ৮০০ টাকা। এর মধ্যে সরকার রাজস্ব পেয়েছে ৮৪ হাজার ৪৬০ টাকা।

তিনি আরো বলেন, এখন থেকে প্রতিদিনই যেমন ট্রলার ও মাছের সংখ্যা বাড়বে, তেমনই রাজস্ব বাড়বে আশাবাদী।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।