ঢাকারবিবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৬:২২

৮ লাখ ৩০ হাজার টাকার জাল পুড়িয়ে ধ্বংস

মহিউদ্দিন অপু
এপ্রিল ২০, ২০২২ ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 188 বার
Link Copied!

বরগুনায় মৎস বিভাগ ও কোস্টগার্ডের পৃথক অভিযানে ৮ লাখ ৩০ হাজার টাকা মূল্যের ব্যবহার নিষিদ্ধ জাল জব্দ করে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। এ মধ্যে রয়েছে নিষিদ্ধ বেহেন্দী জাল, চায়না দুয়ারী ও নেট জাল।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) পাথরঘাটা উপজেলায় ও সোমবার বরগুনা সদর উপজেলায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

কোস্টগার্ডের পাথরঘাটা স্টেশনের কন্টিনজেন্ট কমান্ডার এম. জমির হোসেন জানান, মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত পাথরঘাটা সংলগ্ন বিষখালী নদীতে অভিযান চালিয়ে ৪০টি অবৈধ চায়না দুয়ারী জাল জব্দ করে কোস্টগার্ড। যার আনুমানিক মূল্য ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ কুমার দেব স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়- জেলা মৎস্য অধিদপ্তরের অবৈধ জাল অপসারণের ‘অবৈধ মৎস্য জাল স্পেশাল ক্যাম্পিং’ এর চলমান অভিযানে সোমবার বরগুনা সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয় বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধ চায়না দুয়ারী, বেহেন্দী ও নেট জাল জব্দ করা হয়। জব্দকৃত নিষিদ্ধ জালের আনুমানিক মূল্য ৫ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

কোস্টগার্ডের পাথরঘাটা স্টেশনের কন্টিনজেন্ট কমান্ডার এম. জমির হোসেন বলেন, বিষখালী নদীর নিশানবাড়ীয়া, বাদুরতলা, জিনতলা ও এর আশপাশে অভিযান চালিয়ে জব্দ করা জালগুলো মৎস্য অফিসের প্রতিনিধির উপস্থিতিতে আগুনে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।

বরগুনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ কুমার দেব বলেন, মৎস বিভাগের জব্দকৃত অবৈধ জাল স্পিডবোটে করে বরগুনার ভারানী খালের খারাকান্দা নামক স্থানে নিয়ে এসে জেলেদের উপস্থিতে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, অবৈধ মৎস জাল স্পেশাল ক্যাম্পিং চলমান থাকবে। অবৈধ জাল জব্দ করে পুড়িয়ে ধ্বংস করা ও জেলেদের জরিমানা করা হচ্ছে। জেলার সব উপজেলায় অভিযান করে অবৈধ জাল ধ্বংস করা হবে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।