ঢাকামঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৩:৫৫
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বারগুনা জেলা ছাত্রলীগের কমিটি বাতিলের দাবিতে আ. লীগের কঠোর হুশিয়ারি

নিজস্ব প্রতিবেদক
আগস্ট ১৭, ২০২২ ৩:৫৮ অপরাহ্ণ
পঠিত: 157 বার
Link Copied!

বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি বাতিলের দাবিতে কঠোর হুশিয়ারি দিয়েছে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগ।

ছাত্রলীগ কর্মীদের উপর হামলা ও সংসদ সদস্যের সাথে ঐদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের প্রতিবাদে মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮ টায় প্রেসক্লাব চত্ত্বরে বিক্ষোভ সমাবেশে এ হুশিয়ারি দেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে বক্তব্যে বরগুনা ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটিকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির। একাত্মতা প্রকাশ করে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বরগুনা-১ আসনের সাংসদ অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু পুনরায় বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠনের দাবি জানান।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির বলেন, মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের বাদ দিয়ে কমিটি দেওয়া হয়েছে। এ কমিটি বাতিল করতে হবে। ‌নতুন পদ পাওয়া সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি। এ কমিটিকে আমরা অবাঞ্ছিত ঘোষণা করলাম।

তিনি আরো বলেন, লাখ লাখ টাকার বিনিময়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ কোনো কাউন্সিল ছাড়াই বরগুনায় জেলা ছাত্রলীগের কমিটি দিয়েছে। এ কমিটিকে জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ কেউই সহায়তা করবে না।

সমাবেশে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু তার বক্তব্যে বলেন, কালকের ঘটনা অত্যন্ত বেদনাদায়ক। আমাদের ছেলেদের কোনো দোষ ছিল না। তবু নির্বিচারে পেটানো হয়েছে তাদের। এসপি মহরম আলীর নেতৃত্বে পুলিশ এমন জঘন্য কাণ্ড ঘটিয়েছে। আমরা এ ঘটনায় জড়িতদের বিচার চাই। এ ঘটনায় যারা আহত হয়েছে, তাদের চিকিৎসার সব ভার বহন করবে জেলা আওয়ামী লীগ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে নিজ হাতে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তার এ অগ্রযাত্রায় বাধা দিতে কুচক্রীরা এখনও সক্রিয়।

তিনি আরও বলেন, কাউন্সিল বিহীন ঘোষিত বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের কমিটির মত এত নোংরা, একটা উৎশৃংখল, এত বাজে কমিটি স্বাধীনতার পর থেকে আর কোনদিন এরকম কোন কমিটি হয়নি। এই কমিটির মাধ্যমে বরগুনায় যত অঘটনের সৃষ্টি হচ্ছে। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করব, তিনি নিজের হাত দিয়ে সাইন করে এই কমিটি বাতিল করে কাউন্সিলের মধ্য দিয়ে নতুন করে কমিটি গঠন করতে। এই কমিটি জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগসহ কোনো অঙ্গসংগঠনই মেনে নেয়নি এবং নিতেও পারবেনা।

সমাবেশ শেষে উপস্থিত নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে এএসপি মহরমের কুশপুত্তলিকা পোড়নো হয়। বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, কৃষক লীগ, শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগের একাংশ সহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন।

উল্লেখ্য, সোমবার জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বরগুনা শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজিত আলোচনা সভায় ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত ও পদপ্রাপ্তদের সমর্থকদের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এ সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ইটের আঘাতে পুলিশের গাড়ির গ্লাস ভেঙে যায়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু ভেঙে যাওয়া গ্লাসের ক্ষতিপূরণ ও অপরাধীর বিচারের কথা জানান। তবে তার উপস্থিতিতেই পুলিশ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের লাঠিচার্জ করে। ঘটনার জেরে মঙ্গলবার জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহররম আলীকে প্রত্যাহার করে বরিশাল ডিআইজি কার্যালয়ে নিযুক্ত করা হয়।

এর আগে দীর্ঘ আট বছর পর গত ১৭ জুলাই বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ২৪ জুলাই রাতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটির অনুমোদন দেন। এতে জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ৩৩ সদস্যের নাম প্রকাশ করা হয়। এরপর থেকেই সদ্য ঘোষিত এ কমিটি প্রত্যাখ্যান করে বরগুনা শহরে পদবঞ্চিতরা প্রতিবাদ জানাতে থাকেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।