ঢাকামঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৩:৩৫
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শেষমেশ মাটি চাপা

আমতলী প্রতিনিধি
জুলাই ১৫, ২০২২ ১২:৫০ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 197 বার
Link Copied!

বরগুনায় ছাগলের চামড়া বিক্রি না হওয়ায় হতাশ এতিমখানার পরিচালক ও ব্যবসায়ীরা। ঈদের শেষেও আমতলীতে বিক্রি না হওয়ায় দানের চামড়া মাটির নীচে পুতে রাখা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আমতলীতে অন্তত ৭৫০০ টি পশু কোরবানি দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে গরুর চামড়া পানির দামে বিক্রি হয়েছে। আর বিক্রি না হওয়ায় ছাগলের চামড়া মাটির নীচে পুতে রাখা হয়।

ব্যবসায়ীরা জানান, বড় সাইজের গরুর চামড়া ২৫০-৩০০ টাকা, মাঝাই সাইজের ১৫০-২০০ টাকা ও ছোট সাইজের গরুর চামড়া ১০০-১৫০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। তবে ঈদের শেষ দিনেও কোথাও ছাগলের চামড়া বিক্রির খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে, বিক্রি করতে না পারায় আমতলীর এমদাদুল উলুম কওমী মাদ্রাসায় দানের পাওয়া ৬০ পিস ছাগলের চামড়া মাটির নীচে পুতে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মাদরাসা পরিচালক মাওলানা ওমর ফারুক।

এছাড়াও ন্যায্য মূল্য না পেয়ে কোরবানী দাতারা গরুর চামড়া ভাগ করে খেয়ে ফেলেছেন। এতে হতাশ এতিম খানার পরিচালক ও ব্যবসায়ীরা।

মাদরাসা পরিচালকদের অভিযোগ, কোরবানীর পশুর চামড়া বিক্রি করে এতিমদের খাওয়া ও পোষাকের ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু চামড়ার মূল্য না থাকায় সেই ব্যবস্থা আর হচ্ছে না।

পশ্চিম সোনাখালী গ্রামের সোহেল রানা বলেন, ৫৫ হাজার টাকার গরুর চামড়ার কোন ক্রেতা পাইনি।

গাবতলী গ্রামের হানিফ হাওলাদার বলেন, ৭৫ হাজার টাকার গরুর চামড়ার কোনও ক্রেতা না পেয়ে নিজেরাই খেয়ে ফেলেছি। একই গ্রামের কবির আকনও জানালেন একই কথা।

কাউনিয়া গ্রামের জিয়া উদ্দিন জুয়েল বলেন, ক্রেতাতো পাইনি আর এতিমরাও চামড়া নিতে আসেনি। রিক্সা ভাড়া করে গ্রামের ৭টি গরুর চামড়া এতিমখানায় দিয়ে এসেছি।

আমতলী এমদাদুল উলুম কওমী মাদরাসার পরিচালক মাওলানা মো. ওমর ফারুক জানান, দানের ১১৯ পিস গরুর চামড়া ৩৪০ টাকা দরে বিক্রি করা হয়েছে। তবে ছাগলের চামড়ার কোনও ক্রেতা না পাওয়ায় ৬০ পিস চামড়া শেষমেশ মাটিতে পুতে রাখা হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।