ঢাকাশনিবার, ২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ২:০৫
আজকের সর্বশেষ সবখবর

হাসপাতালে না এসে বাড়িতে মারা যাওয়াই ভালো

নিজস্ব প্রতিবেদক
ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২২ ১১:৩৮ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 57 বার
Link Copied!

বরগুনা সদর হাসপাতাল ১০০ শয্যার হলেও সে তুলনায় রোগীদের জন্য নেই তেমন কোনো সুযোগ-সুবিধা। জেলার ১২ লাখ মানুষের জন্য হাসপাতালে ৪৩ জন চিকিৎসক থাকার কথা থাকলেও, রয়েছেন মাত্র ৬ জন চিকিৎসক। ফলে পর্যাপ্ত জনবল না থাকায় চিকিৎসাসেবা ব্যাহত হচ্ছে প্রতিদিন।

বরগুনা সদর হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, হাসপাতালে ৪৩টি চিকিৎসক পদ আছে। কিন্তু সেখানে রয়েছেন ৬ জন চিকিৎসক। ফলে শূন্য রয়েছে ৩৭ জন চিকিৎসকের পদ। জেলার অন্যান্য উপজেলায়ও চিকিৎসক-সংকট রয়েছে।
এ ছাড়া নার্স, পরিসংখ্যান এবং প্রশাসনিক কর্মকর্তাসহ দ্বিতীয় শ্রেণির ৮৯টি পদ থাকলেও সেখানে কর্মরত রয়েছেন মাত্র ৫৫ জন। বাকি ৩৪ পদ শূন্য।

এমনকি অফিস সহায়ক, বাবুর্চি, মেডিকেল টেকনোলজিস্টসহ তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির ৬৬টি পদ থাকলেও সেখানে কর্মরত আছেন মাত্র ৩১ জন। বাকি ৩৫টি পদই রয়ে গেছে শূন্য। এ ছাড়া আউটসোর্সিং ক্যাটাগরিতে ২০টি পদের সবগুলোই শূন্য।

হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রামিম, ফারুক, নাসিরসহ কয়েকজন রোগী ও স্বজন জানান, এত বড় একটি হাসপাতালে মাত্র ৬ জন ডাক্তার দিয়ে চলছে। এ রকম যদি হয় একটা জেলা হাসপাতালে, তাহলে রোগীরা তো চিকিৎসা ছাড়াই মারা যাবে!

চিকিৎসা নিতে আসা শিক্ষক হুমায়ুন কবির বলেন, একদিকে নেই চিকিৎসক, অন্যদিকে পাওয়া যাচ্ছে না ওষুধ। শুধু একটি প্রেসক্রিপশন দিয়ে বাইরে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। যাদের টাকাপয়সা আছে, তারা নাহয় প্রাইভেট হাসপাতালে ডাক্তার দেখাতে পারে। কিন্তু দরিদ্ররা যাবে কই?

চিকিৎসা নিতে আসা গোলাম হায়দার জানান, সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত বসে থেকেও বহির্বিভাগে চিকিৎসক দেখাতে পারেননি। এই হাসপাতালে না এসে বাড়ি বসে বিনা চিকিৎসায় মারা যাওয়াই ভালো।

বরগুনা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সোহারফ হোসেন বলেন, শুধু চিকিৎসক নয়, সব পদেই লোকজন সংকট রয়েছে আমাদের। ৪৩ জনের জায়গায় মাত্র ৬ চিকিৎসক দিয়ে চলছে হাসপাতালটি। বিষয়টি আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিকবার জানিয়েছি। তারা শিগগিরই কোনো ব্যবস্থা নেবেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।