ঢাকাবৃহস্পতিবার, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৮:৪৫

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের গেটের সামনে কোন দোকান নয়

ডেস্ক রিপোর্ট
মার্চ ৩, ২০২২ ৭:০৮ অপরাহ্ণ
পঠিত: 123 বার
Link Copied!

দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সামনে কোন প্রকারের দোকান রাখা যাবে না বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে একটি চিঠি দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

দেশের সকল স্কুল ও কলেজের গেটের সামনে কোনো স্থায়ী/অস্থায়ী দোকান না রাখার জন্য চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকের কার্যপত্র থেকে এ তথ্য জানা যায়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব কমিটিকে এ বিষয়ে অবগত করেন।

তিনি বলেন, ‘দেশের সকল স্কুল ও কলেজের গেটের সামনে কোনো স্থায়ী/অস্থায়ী দোকান না রাখার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যিমিক শিক্ষা বিভাগ, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়কে পত্র দেওয়া হয়েছে। যদিও সেই চিঠির জবাবে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বা বিভাগ কি জবাব দিয়েছে তার কোনো ব্যাখা নেই প্রতিবেদনে।

এদিকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চায় দেশের সীমান্তবর্তী জেলাগুলো সফর করে সেখানকার পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে সেই জেলাগুলোতে সংসদীয় কমিটির বৈঠক করতে। কমিটির এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

তবে কমিটিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, কমিটির পরবর্তী বৈঠক কক্সাবাজার করা যেতে পারে। তিনি বলেন, কক্সবাজারে কমিটির বৈঠক করে পার্শ্ববর্তী সেন্টমার্টিন, রোহিঙ্গা ক্যাম্প এবং সীমান্তবর্তী এলাকাগুলো পরিদর্শন করার জন্য একটি সফরসূচি তৈরি করা যেতে পারে। তা ছাড়া উত্তরাঞ্চলের সীমান্তবর্তী জেলাগুলোতেও পর্যায়ক্রমে কমিটির বৈঠক করা উচিত।

মন্ত্রীর এই প্রস্তাবের পর কমিটির ২০তম বৈঠক কক্সবাজার জেলায় করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।কমিটি মিয়ানমার সীমান্তবর্তী এলাকা ও রোহিঙ্গা ক্যাম্প সরেজমিনে পরিদর্শন করবে।

বৈঠকে কিছুদিন পূর্বে বিভিন্ন পূজামণ্ডপে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা নিয়ে আলোচনা হয়। তার জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, কুমিল্লা পূজামণ্ডপের ঘটনায় সর্বোচ্চ শক্তি প্রয়োগ করে তদন্ত কাজ সম্পন্ন করে অপরাধী সনাক্ত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বিভিন্ন পূজামণ্ডপে অগ্নিসংযোগ থেকে শুরু করে সভা সমাবেশ সবই ষড়যন্ত্রের অংশ ছিল। নিরাপত্তা বাহিনী সব সময় সতর্ক ছিল এবং যে কোনো ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করতে প্রস্তুত রয়েছে।

কমিটি সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ বলেন, ইস্টার্ণ হাউজিং রমনা পার্ক, বেইলী রোডসহ ভিআইপি এলাকাগুলোতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি দিন দিন অবনতি হচ্ছে। বিশেষ করে রাতের বেলায় ছিনতাই চুরি-ডাকাতি ও অবৈধ লোকের আনাগোনা বেড়ে গেছে। যদিও তার এই কথার জবাবে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কিছু বলা হয়নি।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি’র কমিটির সভাপতি মো. শামসুল হক টুকু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন, মো. আফছারুল আমীন, মো. হাবিবর রহমান, সামছুল আলম দুদু, কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, পীর ফজলুর রহমান, নূর মোহাম্মদ, সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ এবং রুমানা আলী অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠকে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সার্বিক কার্যক্রমের উপর প্রতিবেদন উপস্থাপন এবং বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হয়। জেলা পর্যায়ে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে সমাবেশ করে তাদের সার্বিক কার্যক্রম মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উপস্থাপনের ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সুপারিশ করা হয়। বৈঠকে ডোপ টেস্ট করার কিট পর্যাপ্ত সংখ্যক সরবরাহ নিশ্চিত করার নিমিত্ত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব, জননিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, দুই বিভাগের অধীনস্থ সংস্থা প্রধানসহ বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।