ঢাকাশনিবার, ১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১২:৩৫

রাধে শ্যামের পেছনের সত্য ঘটনা

সাইফ
মার্চ ৫, ২০২২ ১১:৪৭ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 208 বার
Link Copied!

১৯১১ সাল
ইতালির রোম শহর থেকে ১০০ জন যাত্রী ও ৬জন কর্মকর্তা নিয়ে জেনেট্টি নামক নতুন একটি ট্রেন রওনা করে তার গন্তব্যে। পথিমধ্যে এক ১ কিলোমিটার লম্বা ট্যানেল পড়ে। ট্যানেলে প্রবেশের আগেই ২জন যাত্রী লাফিয়ে পড়েন ট্রেন থেকে। ট্রেন ট্যানেলে প্রবেশ করে আর হারিয়ে যায় চিরতরে। মূলত সেই রেইল-লাইনটি পরিত্যক্ত ছিলো, যেখানে ট্রেন চলাচল নিষিদ্ধ।

অনেক খোজাখুজির পরও আর সেই ট্রেনের কোনো অস্তিত্ব খুজে পায় না রেইলওয়ে পুলিশ৷ না ট্যানেলে নাহ বাহিরে কোথায়, কোনো চিহ্নই খুজে পায় না তারা।

পরবর্তীতে সেই ট্যানেলের মুখে পাথর চাপা দিয়ে তা বন্ধ করে দেয়া হয়। ২জন যাত্রী যারা লাফিয়ে পড়েছিলো, তাদের মেন্টাল কনডিশন খারাপ ছিলো।

তারা সুস্থ হলে জানায় যে, ট্রেন যখন ট্যানেলে প্রবেশ করছিলো, তার আগে ট্রেনের বগিতে তারা ধোয়া দেখতে পায়। ট্যানেলের দিকে তাকিয়ে দেখেন, সেখানে উজ্জ্বল আলো আর তারা লাফিয়ে পড়েন ট্রেন থেকে। এক সময় ট্রেনটি সেই আলোর দিকে ছুটে যায় আর মিশে যায় সেই আলোক-রশ্মিতে।

১৯২৬ সাল
মেক্সিকো’র এক নাগরিক জানান যে, তিনি তার বাড়ি রেনোভ্যাশন করার সময় একটি পুরোনো ডায়েরি খুজে পান। যা একজন ডাক্তারের (পূর্বের মালিক)। সেখানে তিনি লিখেন ১৮৪০ সালের এক অদ্ভূত ঘটনা।

১০৪ জন ট্রেন যাত্রী তাদের হাসপাতালে ভর্তি হয়, যাদের মানষিক অবস্থা ভালো ছিলো না।

তারা জানায়, যে ট্রেন যোগে তারা ইতালি থেকে এসেছেন। কিন্তু মেক্সিকো’তে কিভাবে পৌছান সমুদ্র পাড়ি দিয়ে তাও ট্রেনে করে তার উত্তর তারা দিতে পারেন নি। একজনের কাছে একটি দেশলাইয়ের বাক্স পাওয়া যায় যা ১৯০৯ সালে নির্মিত হয়েছে। রাতের বেলা তারা হাসপাতাল থেকে গায়েব হয়ে যান।

১৯৯১ সাল
রোমানিয়ার এক জঙ্গলে পরিত্যাক্ত রেল-স্টেশনে ইনভেস্টিগেশনে যান ৫ জন প্যারানরমাল ইনভেস্টিগেটর। হঠাৎ একটি ট্রেন দাঁড়িয়ে থাকতে দেখেন তারা। কাছে গিয়ে বুঝতে পারেন যে এটি সেই হারিয়ে যাওয়া জেনেট্টি ট্রেন। একজন ট্রেনে ভিতর প্রবেশ করেন আর ট্রেন চলতে শুরু করে। এক সময় ধোয়ার মাঝে হারিয়ে যায় ট্রেন। সেই লোকটিকেও আর খুজে পাওয়া যায়নি।

এমনি করে রাশিয়া, রোমানিয়া ও পর্তুগালে বিভিন্ন সময় এই ট্রেন দেখতে পাওয়া কথা জানায় অনেকে।

Unsolved Mystery হয়ে থেকে যায় এই ঘটনা।

এই ঘটনার উপর ভিত্তি করেই নির্মিত হয়েছে ফিল্ম “রাধে শ্যাম”। ফিল্মের গল্প কি হবে তা আমরা কেউ জানিনা। তবে গল্পে এই কন্সেপ্ট’টি ব্যবহার করা হবে বলেই জানা যায়। Let’s hope for a good Film.

এমন আরো মিস্ট্রি রয়েছে যা অমীমাংসিত এখনো।

যেমন-
◾ফ্রান্সের বিমান বন্দরে আসা সেই কালো কোর্ট পড়া লোক যার হাতে বায়োলিনের বক্স ছিলো আর এমন একটি দেশের পাসপোর্ট ছিলো যে দেশের অস্তিত্ব পৃথিবীতে নেই আর লোকটি বন্ধ রুম থেকে ভেনিশ হয়ে যায়। যা থেকে প্রি-ডেস্টিনেশন ফিল্মের টাইম-ট্রাভেলিং এর যন্ত্র হিসেবে বায়োলিন বক্সের ব্যবহার দেখানো হয়।

◾এমন এক জাহাজ যা শত বছর পূর্বে হারিয়ে গিয়েছিলো, তারপর আবারো দেখা যায় বিভিন্ন সমুদ্র বন্দরে, যে ঘটনা থেকে নির্মিত হয় “দ্যা গোস্ট শিপ” / পাইরেটস্ অব দ্যা ক্যারিবিয়ান : দ্যা কর্স অব ব্ল্যাক পার্ল ।

◾অথবা, সেই বিমান যা হারিয়ে যাওয়ার ৩৭বছর পর ফিরে এসেছিলো ভেনেজুয়েলার বিমান বন্দরে যাত্রীদের মৃত কঙ্কাল নিয়ে।

মিস্ট্রি মিস্ট্রি মিস্ট্রি

Trailer Breakdown & Director’s Interview

◾ফিল্মের ডিরেক্টর রাধা কৃষ্ণা কুমার জানান, তিনি ৭বছর ধরে ফিল্মের গল্প ডেভেলপমেন্ট এ সময় দিয়েছেন। তার মতে, ফিল্মে ২ বা ৩টি সত্যি ঘটনার উল্লেখ রয়েছে। আর প্রভাসের চরিত্রটি ইউরোপীয় হাত- গণনাকারী “চেইরো” থেকে ইন্সপায়ারড (১৮৬৬-১৯৩৬)। যাকে মোস্ট মিস্ট্রেরিয়াস পালমিস্ট বলা হয়।

ট্রেইলার অনুযায়ী গল্প
প্রভাস একজন হাত গণনাকারী, যার ট্রেনে দেখা হয় এক তরুনীর সাথে (পুজা)। হাত গণনা করে পুজার মৃত্যু দেখতে পান। এক সময় প্রেমে পড়ে দু’জন আর প্রভাস পুজার ডেস্টিনি (মৃত্যুর ঘটনা) পরিবর্তন করার চেষ্টা করেন। যেহেতু তিনটি সত্য ঘটনার কথা পরিচালক বলেছেন, তার মানে তিনবার তিনটি ঘটনায় পুজা মৃত্যুর সম্মুখীন হবেন। অথবা, তিনটি “ফারা” দেখতে পাবেন যেখানে পূজার মৃত্যু হওয়ার সম্ভাবনা আছে, আর তিনি তা রুখতে চেষ্টা করবেন। সেগুলো রুখতে পারলে পূজার জীবন বেচে যাবে। আর যদি ফাইনাল ডেস্টিনি নিয়ে ফিল্ম হয়, তাহলে গল্প প্যারালাল ইউনিভার্সের হবে আর স্পয়লার এলার্ট: প্রতিবারই তিনি ব্যর্থ হবেন।

Cause, Destiny Never Can be Change.

◾ঘটনাক্রম: একটি এই ট্রেনের ঘটনা / অন্যটি জাহাজ ডুবির আর ৩য় টি কিসের তার কোনো হিন্ট দেয়া হয়নি। আমার তো মনে হচ্ছে এই দুইটি ঘটনাই মাত্র আছে ফিল্মে। পরিচালক হাইপ নষ্ট করতে চান নি বলে হয়তো ২ বা ৩টি বলেছেন।

আপনার কি মতামত ফিল্মের গল্প নিয়ে?

মুভি রিভিউ : সাইফ

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।