ঢাকাবৃহস্পতিবার, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৯:০৩

যাদের ওভার কনফিডেন্স থাকে তারা কখনো সফল হয় না!

ডেস্ক রিপোর্ট
মার্চ ২, ২০২২ ১:০১ অপরাহ্ণ
পঠিত: 95 বার
Link Copied!

‘আত্মবিশ্বাস’, নিজের প্রতি দৃঢ় বিশ্বাসকেই বলা হয় আত্মবিশ্বাস। এটি মানুষের মনে সাহসের সঞ্চার করে, বাড়িয়ে দেয় কাজের স্পৃহা।

আত্মবিশ্বাস মানুষের এমন একটি শক্তি, যেটির কারণে মানুষ চাইলে যে কোনো কিছু করতে পারে। এর জোরে মানুষ যে কোনো অসম্ভবকে সম্ভব করতে পারে। মানুষের সাফল্যের অন্যতম চাবিকাঠি হলো ব্যক্তির মাঝে আত্মবিশ্বাস সৃষ্টি হওয়া।

আত্মবিশ্বাস হলো মানসিক শক্তির উৎস, বলা যায় এই এক অনুপ্রেরণার সমৃদ্ধ উৎস। সফলদের গল্প পড়লে বুঝা যায় তারা সবাই আত্মবিশ্বাসী ছিলেন। তাদের সাফল্যের পেছনে লুকিয়ে ছিল আত্মবিশ্বাস। চারদিকে এত হতাশা। আর এ হতাশার মূল কারণ ব্যক্তির মাঝে আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি। এর অভাবে ব্যক্তি দিন দিন হতাশ হয়ে পড়ে।

তাই হতাশাগ্রস্ত ব্যক্তিকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আনতে সবার আগে এর প্রয়োজন। একমাত্র আত্মবিশ্বাসই পারে আপনার হতাশা দূর করতে। যখন আপনার ভেতরে আত্মবিশ্বাসের মরণ হবে তখন আপনি জীবত থেকেও মৃত। তখন আপনার পক্ষে ভালো কিছু করা সম্ভব নয়। তাই জীবনে সাফল্যের ছোঁয়া পেতে সবার আগে নিজের মাঝে আত্মবিশ্বাস তৈরি করতে হবে।

যখন আপনার অবচেতন মন হঠাৎ বলে ওঠে, ‘তুমি পারবে’ তখনই আপনার ভেতরে এক ধরনের আত্মবিশ্বাস তৈরি হয়। আর এটি আপনার মানসিক শক্তিকে অনেকগুণ বাড়িয়ে দেয়। আর এই মানসিক শক্তিই আপনাকে একদিন নিয়ে যাবে সাফল্যের সর্বোচ্চ চূড়ায়।

মানুষ মহাকাশ জয় করে, জয় করে সুউচ্চ পর্বত। আর এ দূর্লভ কাজগুলো মানুষ করতে পারে একমাত্র নিজরে আত্মবিশ্বাসের জোরো।

আত্মবিশ্বাস মানুষের সাফল্যের পূর্বশর্ত। এটি মানুষের অনেক বড় সম্পদ। ব্যক্তি একদিনে এটি অর্জন করতে পারে না, ধীরে ধীরে ব্যক্তিকে এটি অর্জন করতে হয়।

আত্মবিশ্বাসের জোরে মানুষ সবকিছু করতে পারে, কিন্তু এটি মাত্তারিক্ত হলে যেটাকে আমরা অভার কনফিডেন্স বলে থাকি তার ফল কখনো ভালো হয় না।

যাদের ওভার কনফিডেন্স থাকে তারা কখনো সফল হয় না। কারণ এ অভার কনফিডেন্সের মাধ্যমে মানুষের মনে এক ধরনের অহংকার জন্ম দেয়। আর এ অহংকার মানুষকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যায়। কথায় আছে না কোনো কিছু মাত্রারিক্ত ভালো নয়। ঠিক তেমনি নিজের প্রতি অতিরিক্ত কনফিডেন্সও ভালো নয়। তবে একেবারে নিজের প্রতি বিশ্বাস কমালেও ব্যক্তির পক্ষে ভালো কিছু করা অসম্ভব।

নিজের প্রতি কনফিডেন্স কমে গেলে ব্যক্তি কোনো কিছু করতে গেলে সাহস পায় না। ধীরে ধীরে সে নিজের প্রতি বিশ্বাস হারিয়ে ফেলে পরিণত হয় কাঁঠের পুতুল। তখন তার মনে হয় আমার দ্বারা কিছুই হবে না। ‘আমার দ্বারা কিছুই হবে না’ এ বাক্যটি তার আত্মবিশ্বাস কমিয়ে ফেলে। এছাড়া, মানুষ চারপাশের পরিবেশ দ্বারাও অনেকাংশে প্রভাবিত হয়। চারপাশের মানুষ যদি আপনাকে সবসময় নেতিবাচক কিছু বলে তা খুব সহজে আপনাকে বিদ্ধ করবে।

একপর্যায়ে ধীরে ধীরে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আপনি হারিয়ে ফেলবেন নিজের প্রতি বিশ্বাস। তাই আত্মবিশ্বাস বাড়াতে আপনার চারপাশের নেতিবাচক মন্তব্যকারীকে এড়িয়ে চলুন। আর এমন বন্ধু খুঁজুন যে আপনাকে সবসময় উৎসাহ দেয়। সবসময় আপনাকে ইতিবাচক কথা বলে। এমন বন্ধু খুঁজুন যে আপনার দেখা রঙিন স্বপ্নপূরণে অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে উঠে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।