ঢাকাশনিবার, ২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ২:২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মৌচাকে বখাটের ঢিল, নারী-শিশু ও সাংবাদিকসহ আহত ৩০

নিজস্ব প্রতিবেদক
ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২২ ১২:২৭ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 104 বার
Link Copied!

বরগুনায় মৌমাছির কামড়ে নারী-শিশু, শিক্ষার্থী, সাংবাদিক ও শ্রমিকসহ প্রায় ৩০ জন আহত হয়েছেন। আহতের মধ্যে লিয়া নামের এক স্কুল ছাত্রী ও সৈকত সংবাদের নিজস্ব প্রতিবেদক মহিউদ্দিন অপুকে গুরুতর অবস্থায় বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

বুধবার (২ ফ্রেবুয়ারী) বিকালে বরগুনা সদর উপজেলার খেজুরতলা সড়কের মুক্তিযোদ্ধা পল্লী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় আহত ১১ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- দক্ষিণ খাজুরতলা এলাকার লিয়া, নাসির, আরিফ, কুমরাখালির নাজমা, মাইনুল, বরইতলার শিমু, সুমাইয়া, লাকুরতলার মরিয়ম বেগম, টাউনহলের আফরোজা, সৈকত সংবাদের নিজস্ব প্রতিনিধি মহিউদ্দিন অপু ও মো. কাশেম হাওলাদার। বাকিদের পরিচয় জানা না গেলেও তারা বরগুনা শহরের বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, খেজুরতলা সড়কের মুক্তিযোদ্ধা পল্লী এলাকায় সড়কের পাশে একটি তেতুল গাছে মৌচাকের মৌমাছি হঠাৎ করে ওই সড়কের পথচারীদের ব্যাপকভাবে আক্রমণ করা শুরু করে। এতে নারী-শিশু ও শ্রমিকসহ অন্তত ৩০ জন আহত হন।

স্থানীয়রা জানান, খেজুরতলা এলাকার সুমন ও বারেক নামের দুইজন বাড়ির সামনে সড়কের পাশের তেতুল গাছে বাধা ওই মৌচাকের দাবি করায় তাদের মধ্যে দ্বন্দ চলছে। এই সুযোগে স্থানীয় হাবিবের ছেলে আব্দুল্লাহসহ এলাকার একাধিক বখাটে প্রায়ই ওই মৌচাকে ঢিল ছুড়ে। এতে করর এনিয়ে একাধিকবার পথচারীরা মৌমাছির কামড়ে আহত হয়েছে।

মৌচাক নিয়ে দ্বন্দ্বের বিষয়ের সত্যতা শিকার করছেন সুমন ও বারেক

বিষয়টির সত্যতা শিকার করে সুমন ও বারেক বলেন, বাড়ির সামনে সড়কের পাশে সরকারি জমিতে একটি তেতুল গাছে মৌমাছিরা চাক বেঁধেছে। চাকটি কাটা নিয়ে আমাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে। যার সুযোগে এলাকার বখাটেরা অজান্তে ঢিল ছুড়ছে। ফলে না জেনে পথ চলতে গিয়ে পথচারীরা মৌমাছির কামড়ে প্রায়ই আহত হচ্ছে।

সৈকত সংবাদের সাংবাদিক মহিউদ্দিন অপু, কাশেম হাওলাদার, সোহাগ হাফিজ ও ভিডিও রিপোর্টার আরিফ বলেন, আমরা মুক্তিযোদ্ধা পল্লীর ওখানে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত মুজিব বর্ষের ঘর উপহারের অনুষ্ঠানের সংবাদ সংগ্রহ করতে যাচ্ছিলাম। অনুষ্ঠান স্থলের পাশেই সড়কে চলন্ত মোটরসাইকেলে বসে অজান্তেই মৌমাছিরা আক্রমণ করে বসে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই একাধিক হুল ফুটিয়ে দেয়।

বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ মনোয়ারা বেগম প্রভা বলেন, মৌমাছির কামড়ে আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে দুই জনকে মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

বরগুনা পাবলিক পলিসি ফোরামের আহ্বায়ক হাসানুর রহমান ঝন্টু বলেন, মৌমাছিদের বিরক্ত না করলে তারা আক্রমন করেনা। যেহেতু বখাটেদের কারনে পথচারীরা প্রায়ই আক্রমণের শিকার হচ্ছে, বখাটেদের চিহ্নিত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হোক।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।