ঢাকারবিবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৮:৩৪

গৃহবধূকে মারধর করে তালাবদ্ধ, ৯৯৯-এ ফোন করে উদ্ধার

আমতলী প্রতিনিধি
জুন ২৩, ২০২২ ২:২৬ অপরাহ্ণ
পঠিত: 48 বার
Link Copied!

বরগুনার আমতলীতে বেদম মারধর করে এক গৃহবধূকে তালাবদ্ধ করে রাখার অভিযোগ উঠেছে। জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে পুলিশ গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

মঙ্গলবার (১৯ জুন) রাতে আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম মিজানুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের ছোট গুলিশাখালী এলাকায় এঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী গৃহবধূ লিজা বেগম (২০) আমতলী উপজেলার আঠারগাছিয়া ইউনিয়নের মিলন তালুকদারের মেয়ে। আর অভিযুক্ত গৃহবধূর স্বামী নান্নু গাজী (২৯) একই উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের মানিক গাজীর ছেলে।

গৃহবধূ লিজা বেগমের অভিযোগ, ২০১৭ সালে ৫ জানুয়ারি নান্নু গাজীর সঙ্গে তার বিয়ে হয়। বিয়ের সময় লিজার বাবা ২ লক্ষ টাকার মালামা দেন। নান্নু লিজাকে বাবার বাড়ি থেকে ব্যবসার জন্য প্রায়ই টাকা এনে দিতে বলত। লিজাও সাধ্যমত বাবার থেকে টাকা এনে দিত। তবে স্বামীর চাহিদা মত টাকা এনে না দিলেই লিজার উপর নির্যাতন করা হত।

শনিবার সকালে স্বামী নান্নু গাজী স্ত্রী লিজা বেগমকে তার বাবার বাড়ী থেকে ৩ লক্ষ টাকা যৌতুক এনে দিতে বলেন। লিজা বাবার বাড়ি থেকে এত টাকা এনে দিতে অস্বীকার করলে স্বামী নান্নু গাজী ও তার পরিবারের সদস্যরা মিলে তাকে বেদম মারধর করে আহত অবস্থায় ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন।

মঙ্গলবার দুপুরে লিজার বাবা খবর পেয়ে ৯৯৯ ফোন করে বিষয়টি জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লিজাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করেন।

গৃহবধূ লিজার বাবা মিলন তালুকদার বলেন, যৌতুকের জন্য নান্নু গাজী, শ্বশুর মানিক গাজী, ভাসুর শাহীন গাজী ও মোখলেছ গাজী প্রায়ই আমার মেয়েকে মারধর করত। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে গৃহবধূর স্বামী নান্নু গাজী জানান, যৌতুকের জন্য নয় পারিবারিক কলহের জন্য সামান্য চড়থাপ্পড় দিয়েছি।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুর রহমান জানান, ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে নির্যাতিত গৃহবধূকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় মামলার প্রস্ততি চলছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।