ঢাকাশনিবার, ২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ২:৪৩
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আ.লীগ নেতার হাত-পা ভাঙার হুমকি নৌকা প্রত্যাশীর

সৈকত সংবাদ ডেক্স
মে ৯, ২০২২ ১০:২৯ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 451 বার
Link Copied!

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের শেষ ধাপে বরগুনার তালতলীতে ৬টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাছাই উপলক্ষ্যে শনিবার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। বর্ধিত সভার আগের দিন নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ নেতা তাইজুল ইসলাম তুহিনকে অন্য প্রার্থীর পক্ষ নেওয়ায় হাত পা ভেঙে দেওয়ার হুমকি দেয় নৌকা প্রত্যাশী মারুফ রায়হান তপু। সেই সাথে তালতলী আসলেও দেখে নিবেন বলে জানায়। তাইজুল ইসলাম তুহিন আরেক নৌকা প্রত্যাশী কামরুজ্জামান বাচ্চুর সমর্থক।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তাইজুল ইসলাম তুহিন তালতলী উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আরেক সহ সভাপতি কামরুজ্জামান বাচ্চুকে সমর্থন দিয়ে আসছেন। প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য বর্ধিত সভার তারিখ নির্ধারন হওয়ার পর শুক্রবার তুহিনের মুঠোফোনে ফোন করে বাচ্চুর পক্ষে সমর্থন দেওয়ায় হাত-পা ভেঙে দেওয়াসহ তালতলী না আসার জন্য হুমকি প্রদান করেন একই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য ও নৌকা মনোনয়ন প্রত্যাশী মারুফ রায়হান তপু । শনিবার বর্ধিত সভায় নৌকা প্রত্যাশী প্রার্থী কামরুজ্জামান তুহিন উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের সামনে বিষয়টি উপস্থাপন করলে তারা সমাধানের আশ^াস দেন।

বর্ধিত সভায় উপস্থিত তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক তৌফিকুজ্জামান তনুসহ একাধিক আওয়ামী লীগ নেতা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বর্ধিত সভায় উপস্থিত নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলী আকাব্বর আলো বলেন, আওয়ামী লীগ নেতা তাইজুল ইসলাম তুহিনকে নৌকা মনোনয়ন প্রত্যাশী মারুফ রায়হান তপু হুমকি দিয়েছে এরকম একটি বিষয় আরেক আওয়ামী লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশী কামরুজ্জামান বাচ্চু তার বক্তব্যে উপস্থাপন করলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রেজবি-উল কবির জোমাদ্দার বিষয়টি মিমাংসা করার আশ^াস দেন।

এবিষয়ে তাইজুল ইসলাম তুহিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তপু আমার বয়সে অনেক ছোট। সব সময়ই আমার সাথে ভালো ব্যবহার করেন। হঠাৎ শুক্রবার আমাকে ফোন দিয়ে বলে আমি অন্য মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীর পক্ষে কাজ করছি। এসময় আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজসহ আমাকে তালতলী গেলে হাত পা ভেঙে দেওয়ার হুমকি দেয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন তৃণমূল আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, এরা কিসের নৌকার মনোনয়ন পাবে? মনোনয়ন পাওয়ার আগেই তারা এভাবে আওয়ামী লীগ নেতাকে লাঞ্ছিত করছে মনোনয়ন পেলে তো ধরাকে সরা জ্ঞান করবে।

তারা আরো বলেন, আমরা কিছুই বলতে পারি না। কোথাও বিচার দিতে পারি না। কারন তার ভাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও তালতলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। তার ভাইয়ের জোরেই এভাবে একজন আওয়ামী লীগ নেতাকে হুমকি দেওয়ার সাহস দেখাচ্ছে। সেই সাথে একজন প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতাকে হুমকি দেওয়ায় তারা নিন্দা প্রকাশ করেন তারা।

মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী রেনু হক নামের এক আওয়ামী লীগ নেত্রী বলেন, বর্ধিত সভার দিন আমরা উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সে গেলে সেখানে তপুর সাথে আমাদের কথা হয়। আমরা হাস্যরসও করি। হঠাৎ করেই কি কারনে জানি না তপু আমাদের সাথে খারাপ আচরণ শুরু করে। নৌকার মনোনয়ন পাওয়ার আগেই তাদের এই অবস্থা হলে নৌকার মনোনয়ন পাওয়ার পর কি অবস্থা হবে?

এবিষয়ে নৌকা মনোনয়ন প্রত্যাশী মারুফ রায়হান তপুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমার সাথে তার একটি ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে সেটা মিমাংসা হয়ে গেছে। কি ভুল বোঝাবুঝি হয়ে ছিলো জানতে চাইলেই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে বলেন, আমি তার সাথে নাচানাচি করেছি, নাকি মারামারি করেছি, কি করছি? তারা কেন আপনার কাছে কেন অভিযোগ দিবে আপনি কে? এটা আমাদের অভ্যন্তরীন বিষয়টি এটা আপনার জানার প্রয়োজন নেই। আমাদের দল আছে দলের নেতৃবৃন্ধ আছে তারা বিষয়টা দেখবে। আমার দল আছে আমার কোন ভুল হলে তারা আমাকে পানিশমেন্ট দিবে।

এবিষয়ে তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রেজবি উল কবির জমাদ্দারের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে। তবে সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুজ্জামান তনু আওয়ামী লীগ নেতাকে লাঞ্ছিত করার বিষয়টি বর্ধিত সভায় উপস্থাপনের কথা স্বীকার করলেও তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।